মেনু নির্বাচন করুন

মনসা মুড়া

বর্তমানে উক্ত স্থানে ১৩ টি বাশঁ ঝাড় আছে । উক্ত ঝাড়ের চতুরদিকে অনেক সাপের গর্ত আছে । জানা যায় হিন্দুদের মণসা দেবীর সেখানে অবস্থান । হিন্দুরা প্রতি বছর চৈত্র মাসে এই মুড়ায় অর্চনা করে। এ উপলক্ষ্যে মেলা বসে । অনেক মানত করে এবং দুধ কলা দিয়ে পূজা করে । শুধু তাই নয় , এই বাশঁ ঝাড়ের বাশঁ কেহ কাটেনা জানা গেছে একদা এক ব্যাক্তি ঐ বাশঁ ঝাড় হতে বাশঁ কেটে নেয়ার পর বাশঁ ফেরৎ দেয়ার জন্য বার বার স্বপ্নে দেখে যে, বাশঁ ফেরৎ না দিলে তাঁর বংশেরকোন লোক বাচঁবেনা । তারপর ও বাশঁ ফেরৎ না দেয়ায় তাঁর নাকে মুকে রক্ত বের হয়ে মারা যায় । তারপর বংশধরগন উক্ত বাশঁ ফেরৎ দিয়ে আসে ।আরেকটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা স্থানীয় কিছু লোক এক সাপুড়ে বহরের সাথে  মনসা মুড়া থেকে সাপ ধরে দেওয়ার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয় । যখন সাপুড়ে তার “বিন বাশিঁ” বাজানো আরম্ভ  করে তখন বাশের পাতায় পাতায় ছোট ছোট সাপ গর্ত হতে উঠে আসে । সাপুড়ে একটি সাপ ধরে পাতিলে রাখার সময় কামড় দিলে তাঁর মৃত্যু ঘটে এবং সম্পূর্ন সাপ সাপুড়ের নৌকার দিকে যেতে আরম্ভ করলে সাপুড়ে দল সাপটি ছেড়ে দিয়ে রাতের অন্ধকারে পালিযে যায় । তারপর থেকে কোন সাপুড়ে আর সেখান থেকে সাপ ধরতে আসেনা । এমন কি মাঠের মাঝে বাশেঁর ঝাড়ের একটি ঝিংলাও কাটতে কেহ সাহস পায়না।

কিভাবে যাওয়া যায়:

ঠিকানাঃ গ্রামঃ দোয়াটি, ডাকঘরঃ পালাখাল, ইউনিয়নঃ ৪নং সহদেবপুর (পূর্ব), উপজেলাঃ কচুয়া, জেলাঃ চাঁদপুর।


Share with :

Facebook Twitter